দ্বন্দ্ব সমাস

অর্থ: ‘দ্বন্দ্ব’ শব্দের অর্থ- মিলন।
সংজ্ঞা: যে সমাসে প্রত্যেকটি সমস্যমান পদের অর্থের প্রাধান্য থাকে, তাকে দ্বন্দ্ব সমাস বলে।

সংজ্ঞা বিশ্লেষণ: সমস্তপদের সবগুলো পদের অর্থ প্রাধান্য পেলেই সেটা দ্বন্দ্ব সমাস হবে এ কারণেই একে ‘উভয়পদ প্রধান’ সমাস বলা হয়।

উদাহরণ ব্যাখ্যা:
১. ঝড়বৃষ্টি। যদি বলা হয়- ‘বাইরে প্রচুর ঝড়বৃষ্টি হচ্ছে’; এর মানে কী? ঝড় হচ্ছে, না- কি বৃষ্টি হচ্ছে? উত্তরটি হচ্ছে: ঝড় ও বৃষ্টি দুটোই হচ্ছে। অর্থাৎ এখানে ‘ঝড় ও ‘বৃষ্টি’- দুটো পদের অর্থই প্রাধান্য পাচ্ছে।
২. মা-বাবা। যদি বলা হয়- ‘তার মা-বাবা বেঁচে নেই’; এর মানে কী? মা বেঁচে নেই, না-কি বাবা বেঁচে নেই? উত্তরটি হচ্ছে: মা ও বাবা- কেউই বেঁচে নেই। অর্থাৎ এখানে ‘মা’ ও ‘বাবা’ দুটো পদের অর্থই গ্রহণ করা হচ্ছে।

ব্যাসবাক্য গঠন: দ্বন্দ্ব সমাসের ব্যাসবাক্য গঠন করা খুবই সহজ। পদগুলোর মধ্যে ও, এবং, আর- এ তিনটি অব্যয়ের যে-কোনোটি বসিয়ে দিলেই ব্যাসবাক্য হয়ে যায়। যেমন: ঝড়বৃষ্টি = ঝড় ও বৃষ্টি, মা-বাবা = মা ও বাবা।

এ-রকম আরও উদাহরণ: তাল-তমাল, দোয়াত-কলম, দম্পতি, দা-কুমড়া, নাক-মুখ, লাভ লোকসান, নয়-ছয়, হাট-বাজার, কাপড়-চোপড়, যা-তা, দেখা-শোনা, ধীরে-সুস্থে, ভালো-মন্দ।

Spread the love