দুয়া/দোয়া/দোআ

যে শব্দটি নিয়ে আমরা এখানে আলোচনা করতে যাচ্ছি, সেটি একটি আরবি শব্দ, যার অর্থ প্রার্থনা বা আশীর্বাদ।

বিশ্লেষণ:
১. দোআ: বাংলায় ‘আ’ বর্ণটি সব সময় শব্দের শুরুতে বসে। কিন্তু এখানে শব্দের শেষে বসেছে। সুতরাং ‘দোআ’ ব্যবহার করা যাবে না।

২. দুয়া: এ বানানে বাংলা ভাষায় স্বতন্ত্র একটি শব্দ রয়েছে। বাংলায় ‘দুয়া’ শব্দের অর্থ- স্বামীর ভালোবাসা-বঞ্চিত নারী। যেহেতু এ বানানে একটি স্বতন্ত্র শব্দ রয়েছে, তাই প্রার্থনা বোঝাতে ‘দুয়া’ লেখা সংগত নয়।
সুতরাং, প্রার্থনা বা আশীর্বাদ অর্থে ‘দোয়া’ বানানটিই ব্যবহার করতে হবে।

দ্রষ্টব্য: আরবি শব্দের ক্ষেত্রে উচ্চারণকে প্রাধান্য দিয়ে কখনো কখনো শব্দের মাঝেও ‘আ’ বর্ণটি লেখা যেতে পারে। যেমন: কুরআন। তবে, ‘দোয়া’ শব্দটির উচ্চারণের ক্ষেত্রে এর প্রয়োজন নেই।

Spread the love